শিরোনামঃ

বাড়ীতেই থাকবেন করোনায় আক্রান্ত জুড়ীর দুই জন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ কোভিড-১৯ এর উপসর্গ না থাকায় জুড়ীর আক্রান্ত দুই জনকে বাড়ীতে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সমরজিৎ সিংহ।

গত ১২ মে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ দুই জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। শনিবার (১৬ মে) পাওয়া ফলাফলে তারা করোনা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হন। একজন উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের চম্পকলতা গ্রামের গৃহিনী (৫৫) এবং অন্যজন (৪৫) ফুলতলা ইউনিয়নের চুঙ্গাবাড়ী গ্রামের বাসিন্ধা এবং রাজকী চা বাগানের শ্রমিক।

আক্রান্ত মহিলা রোববার দুপুরে মুঠোফোনে বলেন, ” ১২ মে আমার বুকে-পিঠে ব্যাথা নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হলে সোমবার সকালে আমার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আমার হার্টের সমস্যা থাকায় চিকিৎসকরা আমাকে সিলেটে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে সিলেটের রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে আমি একই গ্রামে আমার বাবার বাড়ীতে চলে আসি। সেখানে দুইদিন থেকে আমি নিজ বাড়ীতে আসি”।

আক্রান্ত চা শ্রমিক বলেন, “গ্রামে একটি বিরোধের জেরে আমি আঘাতপ্রাপ্ত হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাই। সেখানে আমার চিকিৎসার পর তারা নমুনা নেন। শনিবার জানতে পারি আমার শরীরে করোনা আছে”।

ইউএইচএফপিও জানান, আক্রান্তদের শরীরে করোনার কোন উপসর্গ না থাকায় তাদের নিজ নিজ বাড়ীতে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদের শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ড বা সিলেটে পাঠানো হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কোভিড-১৯ উপজেলা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি অসীম চন্দ্র বনিক জানান, শনাক্ত দুই জনের বাড়ীসহ পার্শবর্তী ১০ টি বাড়ী লকডাউন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, নতুন এ দুই জনসহ জুড়ী উপজেলায় এ পর্যন্ত মোট ছয়জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হল। এরমধ্যে তিনজন সুস্থ হয়েছেন।

অন্যান্য খবর পড়ুন