শিরোনামঃ

মহামারিতে আতঙ্কে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী

বিশেষ প্রতিবেদকঃ করোনা সংক্রমণ রোধে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থীই হাত ধোয়াসহ পরিচ্ছন্নতা বিধি মেনে চলছে। কিন্তু এখনো ১০ শতাংশ তা মানছে না। আর ১৮ শতাংশ শিক্ষার্থী লকডাউন বা ছুটির মধ্যেও বাইরে চলাফেরা করছে। তবে ৮২ শতাংশ ঘরে থাকছে। আর মহামারির এই পরিস্থিতিতে আতঙ্কে ভুগছে ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক পরিচালিত সম্প্রতিক এক জরিপে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

দেশের আটটি বিভাগের ১৬টি জেলায় গত ৪ থেকে ৭ মে পর্যন্ত এক হাজার ৯৩৮ জন শিক্ষার্থীর ওপর এই জরিপটি চালানো হয়।
শনিবার বিকেলে এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জরিপের ফল প্রকাশ করা হয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত ছুটির এই মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

জরিপের তথ্য বলছে আতঙ্কে ভুগছে অন্তত ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী। প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের এই হার ২৯ শতাংশ। আর মোট ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থীর পড়ালেখার প্রতি নেতিবাচক মনোভাব তৈরি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মহাপরিচালক তপন কুমার ঘোষ, ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচির পরিচালক শাফিকুল ইসলামসহ এ টু আই প্রকল্প, ইউনেসকো, ইউনিসেফের প্রতিনিধিরা।

অন্যান্য খবর পড়ুন