শিরোনামঃ

সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকার জন্য অধিক পরিমাণে গাছ লাগাতে হবে-পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, কোভিড-১৯ এর কারণে বিশ্ব চরম বিপর্যয়কাল অতিক্রম করলেও নিজেদের সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকার স্বার্থেই অধিক পরিমাণে গাছ লাগানোর কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তন জনিত ঝুঁকি এবং বায়ু, পানি, শব্দ দূষণের প্রভাব মানবজাতির ওপর দীর্ঘমেয়াদি ও মারাত্মক তাই এগুলো থেকে রক্ষা পেতে পরিবেশ, বন ও বন্যপ্রাণি সংরক্ষণে সরকারের পাশাপাশি সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। বেঁচে থাকার জন্য সবচেয়ে অপরিহার্য বায়ুমণ্ডলের অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়াতে খোলা জায়গায় বিশেষ করে সকল প্রতিষ্ঠানে আবশ্যিকভাবে বেশি করে বৃক্ষরোপণ ও তা সংরক্ষণে কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

১১ জুলাই শনিবার মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে “মহামারী কোভিড-১৯ কে প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরীর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করি” প্রতিপাদ্য ধারণ করে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০২০ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠান, কোভিড-১৯ প্রতিরোধ, ত্রাণ বিতরণ এবং স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন এসব কথা বলেন।

পরিবেশ মন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ কালীন সময়েও সরকার জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও জীবন-জীবিকা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। বিশেষ করে নারী ও কিশোরীর প্রজনন স্বাস্থ্য এবং মা-শিশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত এবং বিভিন্ন ধরণের প্রশিক্ষণ প্রদান করে জনগণকে জনসম্পদে পরিণত করা সরকারে লক্ষ্য। তিনি বলেন, সরকারের কার্যকরী উদ্যোগের ফলে দেশে মাতৃমৃত্যু, নবজাতক ও শিশু মৃত্যু উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার এবং প্রতি সক্ষম নারীর সন্তান জন্মদানের হার কাঙ্খিত পর্যায়ে নিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের উদ্যোগের ফলে মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়ে ৭২.৩ বছর হয়েছে। পরিবেশ মন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবিলাসহ রোগমুক্ত থাকতে সবাইকে প্রাথমিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মন্ত্রী এসময় আসন্ন কোরবানীতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশু কোরবানী দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান।

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান, পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ, সিভিল সার্জন ডা: তওহীদ আহমদ, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক মো: আব্দুর রাজ্জাক প্রমূখ।

উল্লেখ্য, মতবিনিময় সভার পর বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০২০ উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বার্ষিক কাজের মূল্যায়নে শ্রেষ্ঠ পাঁচ জন কর্মী এবং পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

অন্যান্য খবর পড়ুন