শিরোনামঃ

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের প্রণোদনা দিয়েছে সরকার : পরিবেশমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ সারাদেশে করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের প্রণোদনা দিয়েছে সরকার। প্রণোদনার পাশাপাশি খামারিদের ট্রেনিং, বিভিন্ন সহায়তাসহ নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা। সারাদেশে বেকারত্ব দূরীকরণসহ দেশের সাধারণ জনগণের পুষ্টি চাহিদা পূরণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন খামার মালিকগণ। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে খামার মালিকদের ধন্যবাদ জানাই। বর্তমানে দেশের বেকার যুবকরা বিভিন্ন প্রাণীর খামার তৈরির মাধ্যমে নিজের বেকারত্ব দূর করে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। সরকারি বিভিন্ন সুবিধার ফলে সারাদেশে খামারের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে বেকারত্ব যেমন দূর হচ্ছে, তেমনি পুষ্টি ঘাটতিও কমে আসছে। ‘পুষ্টি, মেধা, দারিদ্র্য বিমোচন, প্রাণিসম্পদের প্রদর্শনীর আয়োজন’ এই স্লোগনকে সামনে রেখে মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলায় উপজেলা প্রশাসন ও প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন হতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী আলহাজ্ব মো. শাহাব উদ্দিন এমপি এসব কথা বলেন।

শনিবার ( ৫ জুন ) মক্তদির বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল-ইমরান রুহুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- জুড়ী উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. হাছিন আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রঞ্জিতা শর্মা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ সাজু, উপজেলা প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডা. শ্যামল কুমার চৌধুরী, উপজেলা পোল্ট্রি খামার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হারিছ মোহাম্মদ, সমাজসেবক হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

এ প্রদর্শনীতে ৩২টি প্রাণীর স্টল অংশ নেয়। বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্টলের খামারিদের মধ্যে ৩০ হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়। সভায় খামার মালিকরা তাদের খামার ঠিকিয়ে রাখতে ডেইরি ও পোল্ট্রী ফিডের মূল্য হ্্রাসের দাবী জানান।

অন্যান্য খবর পড়ুন