শিরোনামঃ

মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সংবাদ সম্মেলন

সাইফুল ইসলাম সুমনঃ মৌলভীবাজারের চাঞ্চল্যকর ২টি ঘটনাসহ চারটি ঘটনার রহস্য উদঘাটন নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে জেলা পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া গণমাধ্যমকর্মীদের এ বিষয়গুলো অবগত করেন।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া জানান, ২১শে জুন জেলার জুড়ী থানা এলাকায় রাত্রীকালীন দায়িত্বে থাকা পুলিশের টহলদলের কন্টিনালা এলাকায় একজন লোকের গতিবিধি সন্দেহ হয়। পুলিশ তাকে চ্যালেঞ্জ করলে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ বেলাগাঁও গ্রামের আলেক মিয়ার পুত্র জাহাঙ্গীর (৩২)কে আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদকালে সে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চুরি করে সিলেট শহরে বিক্রি করার কথা জানায়। তার সূত্রধরে সিলেট শহরের শাহ্‌পরাণ থানা মেজরটিলা নূরপুর এলাকার আব্দুল কুদ্দুছের পুত্র মহিবুর রহমান (৪৫) ও মো. দেলোয়ার মিয়ার পুত্র মো. উসমান (২৭)কে কুতুবের কলোনী থেকে আটক করা হয়। আসামি মহিবুর ও দেলোয়ারের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শাহ্‌পরাণ থানাধীন মোহাম্মদপুর এলাকার সুমনের ভাড়া বাসায় আরেক দফা অভিযান চালিয়ে আল আমিন (২৪) নামের একজন চোরকে আটক করা হয়।

আটককৃতদের তথ্যমতে অটোরিকশা চুরি করে বহনকারী পিকআপ ও গাড়ির চালক চোরচক্রের সদস্য বড়লেখা থানার মুছেগুল গ্রামের বাসিন্দা মোছাব্বির আলীর পুত্র জুনেদ আহমদ (৩৫)কে আটক করা হয়। এদিকে বড়লেখা উপজেলার তেরাকরি গ্রামের ক্ষীতেশ রায় ও বিনতা রায়ের পুত্র সুজন রায় (১৮), ১০-১২টি ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে মেয়েদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে নানা অশ্লীল ছবি তাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করতো। সে ওই মেয়েগুলোর অশ্লীল কন্টেন্ট ও তাদের ছবি এডিটিং করে অশ্লীল ছবি লাগিয়ে তার ফেইক আইডিগুলোতে ছড়িয়ে দিয়ে তাদের কাছে টাকা ও নানা অনৈতিক প্রস্তাব পাঠাতো। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। তার গ্রুপের অন্যদেরও ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ। এছাড়াও মাদক, কিশোর গ্যাং, লাইসেন্সবিহীন গাড়িসহ জেলার আইনশৃঙ্খলার উন্নয়নের সার্বিক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের অবহিত করেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া। সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) সাদেক কাওছার দস্তগীর, সহকারী পুলিশ সুপার তানজিল, ডিবি’র ওসি মোহাম্মদ বদিউজ্জামান, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় প্রমুখ।

অন্যান্য খবর পড়ুন